মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে সমর্থন পেতে এক বিধায়ককে ১০০০ কোটির টোপ ইয়েদুরাপ্পার?

0
19
কর্ণাটক বিধানসভার সদস্য পদ খারিজ হওয়া নারায়ণ গৌড়া দাবি করেছেন কংগ্রেস -জেডিএস সরকার ফেলে দেওয়ার অাগের দিন ইয়েদুরাপ্পা তাকে ১০০০ কোটি টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। অবশ্যই সমর্থনের বিনিময়ে। মুখ্যমন্ত্রী হয়ে তা তিনি দিয়েছেনও বলে দাবি জেডিএসের ওই প্রাক্তন বিধায়কের। তবে এই টাকা তাঁর বিধানসভা এলাকা উন্নয়নের জন্য মঞ্জুর করেছেন মুখ্যমন্ত্রী ইযেদুরাপ্পা। অন্তত মিডিয়াকে এমনটাই জানিয়েছে নারায়ণ গৌড়া।
প্রাক্তন এই বিধায়কের দাবির সত্যতা যাচাই করা উচিত অবশ্য। অবশ্যই উচ্চপর্যায়ের তদন্ত হওয়া উচিত। টোপ দিয়ে এইভাবে বিধায়ক কিনে মুখ্যমন্ত্রী হওয়া সংবিধান সম্মতভাবে যায় কি?তাছাড়া এলাকা উন্নয়নের জন্য ১০০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হলে তাঁর ব্যক্তিগত উন্নয়নের জন্য কী প্রতিশ্রুতি নারায়ণ গৌড়া পেয়েছিলেন তাও অামাদের জানা উচিত।

এদেশে সংসদীয় রাজনীতিতে ঘোড়া কেনা বেচা নতুন কিছু নয়। তবে সেজন্য যে অঙ্কের টাকা হাত বদলের খবর শোনা যাচ্ছে  এখন তা চমকে ওঠার মত বটে। কর্ণটককে বিচ্ছিন্ন ঘটনা বলে ভাবলে হবে না এরাজ্যে শাসকদলের এক প্রাক্তন নেতা বাজার সরকার বলে পরিচিত ছিলেন। তাঁর বিরুদ্ধেও সিপিএম কংগ্রেসের বিধায়ক ভাঙানোর অভিযোগ উঠেছিল। তিনি এখন জার্সি বদল করেছেন। তবে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।তা কর্ণাটকের ওই প্রাক্তন বিধায়কের দাবি সত্যি হলে অবাক হওয়ার কিছু নেই। এদেশে ভোটের বাজারে সবই কেনা বেচা সম্ভব।