তেজাসে খাবার খেয়ে হাসপাতালে ভর্তি ২৪জন যাত্রী

0
104
ভারতীয় রেলে বেসরকারিকরণ শুরু হয়েছে অনেক অাগেই। অাইঅারসিটিসির মাধ্যমে যেখাবার যাত্রীরা খান তা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই সরবরাহ করে থাকে বেসরকারি কেটারিং সংস্থা। এবার সেই খাবার খেয়ে গোয় ও মুম্বইএর মধ্যে চলাচলকারী তেজাস এক্সপ্রেসের ২৪জনকে হাসপাতালে ভর্তি হত হল জানাচ্ছে দ্য হিন্দ্যু । তেজাসে খাদ্য বিষক্রিয়ার ঘটনাটি এতটাই মারাত্মক অাকার ধারন করেছে যে ২৪জনকে মুম্বইয়ের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ইতিমধ্যে কেটারিং সংস্থার লাইসেন্স বাতিল করার জন্য রেলের তরফে শোকজ করা হয়েছে।
 ভারতীয় রেলের ট্রেনে খাবার সরবরাহ করার দায়িত্ব অনেকদিন অাগেই রেল নিজে ঝেড়ে ফেলেছে। সেই দায়িত্ব রয়েছে অাইঅারসিটিসি-র হাতে। অাইঅারসিটিসি অাবার বেসরকারি কেটারিং সংস্থাগুলিকে ট্রেনে খাবার সরবরাহের বরাত দেয়। দীর্ঘদনি বারবার খাবারের গুনমান নিয়ে প্রশ্ন উঠলেও না রেল না অাইঅারসিটিসি কেউই বিষয়টিকে তেমন পাত্তা দিতে রাজি নয়। লোকদেখান শোকজ। তার পর যে কে সেই। এর অাগেও ট্রেনে দেওয়া খাবারে অারশোলা বা টিকটিকির হদিশ পাওয়া গেছে।তবে রেলের খাবার খেয়ে একসঙ্গে ২৪জনকে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সাম্প্রতিক কোন ঘটনা মনে পড়ছে না।তাই যারা রেলকে বেসরকারিকরণ করা হোক বলে চিত্কার করছেন বা সরকারের সিদ্ধান্তকে সমর্থন করছেন তাদের মনে রাখা উচিত ট্রেনে রেলের তরফে যে খাবার এখন তারা খান তা বেসরকারি সংস্থার তৈরি।ফলে গোটা রেলটা যখন বেসরকারিকরণ হবে তখন তারা ঠ্যালা কেমন হবে তা এখন থেকেই বোঝা যাচ্ছে। অবশ্য যদি বুঝতে চান।