এ কেমন দাওয়াই! রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের বেসরকারিকরণের পক্ষে সওয়াল অভিজিত্ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়ের

0
206

এদেশের ব্যাঙ্কিং সঙ্কট ও পরিচালনার ক্ষেত্রে দখলদারির হাত থেকে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ককে মুক্ত করতে বেসরকারি করণের পক্ষে সওয়াল করলেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিত্ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার নয়া দিল্লিতে এক সাংবাদিক বৈঠকে অভিজিতবাবু জানিয়েছেন সেন্ট্রাল ভিজিল্যান্স কমিশনের নজরদারির জেরেই ব্যাঙ্ক স্বাভাবিকভাবে কাজকরতে পারছে না। প্রতিটি ঋণখেলাপির তদন্তের অধিকার যেহেতু সিভিসির হাতে থাকে তাই ব্যাঙ্ক পরিচালনায় অসাড়তা এসে যাচ্ছে। তাই তিনি মনে করেন রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে সরকারি মালিকানা বা শেয়ারের অংশ ৫০ শতাংশের নীচে নামিয়ে অানা উচিত।

এবার অন্য ২জনের সঙ্গে নোবেল পেয়েছেন অভিজিত বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়। দারিদ্র দূরীকরণে তাঁর গবেষণার জন্যই এই স্বীকৃতি। তাই অভিজিতবাবুর অজানা নয় যে এদেশে কোটি কোটি টাকা ঋণ লোপাট করে বিদেশে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনাগুলির জন্য সিভিসি দায়ী নয় বরং এর পিছনে রয়েছে ব্যাঙ্কের পরিচালকবর্গ ও প্রভাবশালীদের যোগসাজশ। অভিজিত্ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মত পন্ডিত মানুষ নিশ্চয়ই জানেন  এদেশে এখনও জনসাধরণের একটি বড় অংশ বাধ্য হয়েই মহাজান, মাইক্রোফিনান্স বা চিটফান্ডের খপ্পরে পড়েন। এদের অধিকাংশটাই অাবার গরীব মানুষ। তাই এই অবস্থায় রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক বেসরকারিকরণ হলে এই গরীব মানুষদের অবস্থার কি উন্নতি সম্ভব?এদেশে কশতাংশ মানুষ বেসরকারি ব্যাঙ্কের  সেভিংস অ্যকাউন্টে  ন্যূনতম জমার অঙ্ক রাখতে পারবেন ? অভিজিত বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মত নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদদের কাছে ২০০৮ সালে অামেরিকার সাব প্রাইম ক্রাইসিসের কথা অজানা নয়। সেখানে লেহম্যান ব্রাদার্স সহ একাধিক বেসরকারি সংস্থাকে সরকারি অর্থেই বেলঅাউট করতে হয়েছিল। ভারতের মত গরীব দেশে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের ভূমিকাকে অগ্রাহ্য করে দেশের গরীব মানুষের কথা ভাবা যায় কি?

 

 

REPLAY: Nobel Laureate Abhijit Banerjee Speaks To Media

REPLAY: Abhijit Banerjee took questions at a news conference about healthcare. But the Nobel Laureate for Economics tried to stay away from questions about the economy.

Posted by Brut India on Tuesday, 22 October 2019